Dhaka International university

Congratulation to team DIU Goal Diggers!

Published Date :

গত ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি (আইইউটি) তে ডিপার্টমেন্ট অফ ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং কর্তৃক ৫ম বারের মত আয়োজিত দেশের সর্ব বৃহৎ টেক ফেস্টিভাল ESONANCE-2018 তে প্রোজেক্ট শোকেসিং এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এর কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ। সারা দেশ হতে সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মিলিয়ে সর্বমোট ২৫ টি টিম প্রোজেক্ট শোকেসিং এ অংশগ্রহন করেছিল।

ঢাকা শহরের যানজট হ্রাস করতে বাংলাদেশে এই প্রথম IoT টেকনোলজি এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এর মাধ্যমে অত্যন্ত যুগোপযোগী ও কার্যকর এক সিস্টেমের উদ্ভাবন করলো ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চার ছাত্র-ছাত্রী । ‘গোল ডিগার্স’ নামে পরিচিত এই গ্রুপটির অন্যতম সদস্য মোঃ আতিকুল ইসলামের মতে “Park Easy” নামক এই সিস্টেমটি ঢাকা শহরের মত ব্যস্ত শহরগুলোর যানজট নিরসনে অনেকাংশেই সফল হবে।

ঢাকা শহরে যানজট সৃষ্টির প্রধান কারন গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে যত্রতত্র পার্কিং করা। আর এই যত্রতত্র পার্কিং করার অন্যতম প্রধান কারন উপযুক্ত ও ফাঁকা পার্কিং স্পট খুঁজে না পাওয়া এবং পার্কিং স্পট গুলোর অবস্থান সম্পর্কে ধারনা না থাকা।এই প্রক্রিয়ায় ঢাকা শহরের সকল পার্কিং স্পট গুলোকে নিবন্ধনের আওতায় এনে ডিজিটাল সিস্টেমে রুপান্তর করা হবে যার মাধ্যমে স্পট গুলোর সকল তথ্য প্রতি মুহূর্তে ইন্টারনেট সার্ভারে আপডেট করা হবে। ফলে একজন চালক খুব সহজেই স্মাটফোনের অ্যাপের মাধ্যমে নিকটবর্তী পার্কিং স্পটগুলোর সকল তথ্য পাওয়ার পাশাপাশি পার্কিং স্পট বুকিং করতে পারবে।একই সাথে পার্কিং স্পটগুলোর সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পাসওয়ার্ড কন্ট্রোল প্রবেশ (Entry)& বাহির (Exit)গেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে এই সিস্টেমে। চালক বুকিং নিশ্চিত করার পর তাকে একটি গোপন পাসওয়ার্ড দেওয়া হবে যার মাধ্যমে চালক পার্কিং এর জন্য প্রবেশ(Entry) করতে পারবে। এই সিস্টেমে পার্কিং থেকে Exit এর জন্য ও একই পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়েছে।

‘গোল ডিগার্স’ গ্রুপের মেম্বারদের মতে তাদের সিস্টেমের অন্যতম বিশেষ বৈশিষ্ট হচ্ছে “Request Mechanism”; যার মাধ্যমে চালক তার নিকটবর্তী পার্কিং স্পট গুলোতে ফ্রী পার্কিং না থাকলে, ঐ সময়ে অবস্থানরত সকল গ্রাহকদের নিকট ডিসকাউন্ট অফারের মাধ্যমে পার্কিং এর জন্য অনুরোধ করতে পারবে। ফলে চালকের ঐ সময়ে ফ্রী পার্কিং পাওয়ার সম্ভা্ব্যতা অনেকাংশেই বৃদ্ধি পাবে বলে তারা মনে করেন।

‘টিম গোল ডিগার্স এর’ এই কাজে যিনি সবসময় অনুপ্রেরনা দিয়েছেন এবং যার সাহায্য ছাড়া এই কাজটি করা প্রায় অসম্ভব ছিল তিনি হলেন “Park Easy” সিস্টেমের সুপার ভাইসার ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের প্রভাষক সম্রাট কুমার দে।

‘টিম গোল ডিগার্’ এখন তাদের এই সিস্টেমটি বাস্তবায়নের জন্য সরকারসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করছে। ইতোমধ্যে তাদের এই কাজটি ক্যাম্পাসে সাড়া ফেলার পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত টেক ফেস্টে সাদরে সমাদৃত হয়েছে। সঠিক পৃষ্ঠ পোষকতা ও সহযোগিতা পেলে তারা আরও অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবে বলে আশা ব্যক্ত করেন তাদের ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আব্দুল বাসেদ এবং অনুষদের ডিন প্রফেসর ডঃ এ টি এম মাহবুবুর রহমান।